রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৯:১০ অপরাহ্ন

পু’লিশের মা’মলাই নিচ্ছে না পু’লিশ!

প্রকাশিতঃ বুধবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২১, ৬:৩৩ পূর্বাহ্ন

রাজধানীর গুলশানে মধ্যরাতে বেপরোয়া গতিতে বিএমডব্লিউ হাঁকিয়ে পু’লিশ সার্জেন্টের বাবাকে চাপা দেন বিচারপতির ছে’লে। ঘটনার ১২ দিনেও পু’লিশ অ’ভিযোগ নেয়নি থা’না রাজধানীর গুলশানে মধ্যরাতে বেপরোয়া গতিতে বিএমডব্লিউ হাঁকিয়ে নারী পু’লিশ সার্জেন্টের বাবাকে চাপা দেন বিচারপতির ছে’লে। সেই দুর্ঘ’টনায় এক পা হারিয়ে এখন মৃ’ত্যুপথযাত্রী মনোরঞ্জন হাজং। ঘটনার ১২ দিনেও মা’মলা করতে পারেনি ভুক্তভোগী সার্জেন্ট মহুয়া হাজং।

 

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী থেকে উঠে আসা ওই নারী সার্জেন্টের অ’ভিযোগ, অ’ভিযু’ক্তরা প্রভাবশালী হওয়ায় তার অ’ভিযোগ আমলে নিচ্ছেন না কর্মক’র্তারা। বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) রাত ২টার পর বনানীর চেয়ারম্যান বাড়ি সড়কে মনোরঞ্জন হাজংকে মোটরসাইকেলসহ চাপা দেয় একটি বিএমডব্লিউ। সে সময় গাড়িতে ছিলেন এক নারীসহ তিনজন।

 

গাড়িটি চালাচ্ছিলেন বিচারপতির ছে’লে সাইফ হাসান। পরবর্তীতে পথচারীরা গাড়ির ড্রাইভা’র ও গাড়িটিকে আ’ট’ক করে পু’লিশে দেয়। কিন্তু কিছুক্ষণ পর বিচারপতির ছে’লে ও তার বন্ধুদের ছেড়ে দেয় পু’লিশ। আর আ’হত মনোরঞ্জনকে পাঠানো হয় পঙ্গু হাসপাতা’লে।

 

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, বনানীর চেয়ারম্যান বাড়ির ইউলুপের পাশে মোটরসাইকেল নিয়ে অ’পেক্ষা করছিলেন মনোরঞ্জন। এ সময় হঠাৎ একটি প্রাইভেট কার এসে তাকে চাপা দেয়। এতে কোম’রের নিচের অংশ থেঁতলে যায় তার। হাসপাতা’লে এখন জীবন-মৃ’ত্যুর সন্ধিক্ষণে বিজিবির সাবেক হাবিলদার মনোরঞ্জন হাজং। কে’টে ফেলা হয়েছে তার একটি পা। ঘটনার আগের দিন করেছিলেন হার্ট অ্যাটাক। বর্তমানে তাকে বারডেম হাসপাতা’লের আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

 

এ বিষয়ে ভুক্তভোগীর ছে’লে মৃ’ত্যুঞ্জয় হাজং বলেন, “বাবার বাম পায়ের হাঁটুর হাড় ভেঙে গেছে। ডান পায়ের অবস্থাও খা’রাপ।” পু’লিশের সার্জেন্ট ও ভুক্তভোগীর মে’য়ে মহুয়া হাজং বলেন, “তিন দফায় বনানী থা’নায় মা’মলা করার জন্য গেলেও পু’লিশ অ’ভিযোগ নেয়নি। অ’ভিযু’ক্তরা প্রভাবশালী ব্যক্তির সন্তান। আমা’র বাবার সাথে যা হয়েছে তার ন্যায়বিচার পাবো কিনা সে ব্যাপারে সন্দিহান।”

 

অ’ভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে গুলশান বিভাগ পু’লিশের উপ-কমিশনার আসাদুজ্জামান জানান, এ ঘটনার প্রাথমিক ত’দন্ত এখনও শেষ হয়নি। ত’দন্ত শেষ হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: