মঙ্গলবার, ১১ জানুয়ারী ২০২২, ১২:৪৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
প্রবাসী আমিরুলকে মেরে ৯ দিন পর লাশ দেশে পাঠায় চার মামাতো ভাই যাত্রীচাপ সামলাতে দুবাই রুটে বিমানের অতিরিক্ত ফ্লাইট কাতার সরকারের নেওয়া নতুন সিদ্ধান্তে হতাশ প্রবাসী বাংলাদেশিরা শুধু লাল তালিকায় না, বাংলাদেশকে ‘ব্যতিক্রমী লাল’ তালিকায় যুক্ত করলো কাতার ঢাকা থেকে কাতারে এসেই পেটের অসুখে আক্রান্ত প্রবাসীরা, এয়ারপোর্টে নতুন নির্দেশনা ৫ গন্তব্যের কোনো সিট খালি নেই, ভাড়া কমানোর আগেই বিমানের টিকিট বিক্রি শেষ! ইলিয়াস আমার টাকা-পয়সা, গয়না নিয়ে চলে গেছে: সুবাহ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে সংঘর্ষ, জয়-লেখক আহত মধ্যপ্রাচ্যের ৫ রুটে ১৬ তারিখ থেকে কম ভাড়ায় চলবে বিমান জাহানারা বিশ্বসেরা সুন্দরী ক্রিকেটারদের তালিকায় সবার উপরে

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ অবৈধদের জন্য সুখবর

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২১, ১১:০৯ পূর্বাহ্ন

মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশিসহ বিদেশি শ্রমিকদের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের সময়সীমা বাড়িয়েছে দেশটির সরকার। ২০২২ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত এ সুযোগ বাড়ানো হয়েছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) দেশটির অভিবাসন বিভাগের ফেসবুক পেজে এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানান ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল যাইমি দাউদ।

 

মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের হাইকমিশনার মো. গোলাম সারোয়ার জানান, লকডাউন আর বিভিন্ন জটিলতার কারণে অনেকেই এ রিক্যালিব্রেশন রিটার্নের আওতাভুক্ত হতে পারেননি। আমরা এ দেশের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে সময়সীমা বাড়ানোর সুপারিশ করি। তিনি বলেন, আমাদের সুপারিশ আমলে নিয়ে ২০২২ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ‘রিক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ কর্মসূচির সময়সীমা বাড়িয়েছে মালয়েশীয় সরকার।

 

গত কয়েকমাস থেকে মালয়েশিয়ায় অনিবন্ধিত বিদেশিদের ধড়পাকড় বেড়ে যায়। এতে অন্তত তিন শতাধিক বাংলাদেশি আটকের খবর পাওয়া যায়। তবে রাষ্ট্রদূত বলেন, এটি মালয়েশিয়া সরকারের একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। এর সঙ্গে বৈধকরণের কোনো সর্ম্পক নেই। বিভিন্ন অপরাধে বাংলাদেশিসহ অন্যদেশিরাও আটক হন। এর মধ্যে নিবন্ধন না থাকাও একটি অপরাধ।

 

চলমান রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামের মাধ্যমে তারা ইমিগ্রেশনের অনুমতি ছাড়াই নিজ দেশে ফিরতে পারবেন। আর নিতে হবে না ইমিগ্রেশনের অ্যাপয়েন্টমেন্ট। অর্থাৎ অবৈধ অভিবাসীরা সরাসরি কুয়ালালামপুর ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে গিয়ে ৫০০ রিঙ্গিত জরিমানা প্রদান করে নিজ দেশে চলে যেতে পারবেন। এক্ষেত্রে পাসপোর্ট বা ট্রাভেল পাস এবং ফ্লাইট টিকিট সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে। অবশ্যই করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট ফ্লাইটের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করতে হবে এবং ৬-৮ ঘণ্টা আগে বিমানবন্দরে যেতে হবে।

এদিকে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ জানায়, যারা রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামে অংশ নিচ্ছেন না এবং যে কোম্পানির মালিক অবৈধ শ্রমিকদের দিয়ে কাজ করাচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ার ১৯৫৯/৬৩ অনুচ্ছেদের ৫৫ (বি) ধারা মোতাবেক আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

কোনো স্থানে যদি অবৈধ শ্রমিক পাওয়া যায় তাহলে মালিকপক্ষ ও কর্মচারীকে বড় অঙ্কের জরিমানাসহ এক বছরের জেল কার্যকর করা হবে। অন্য আরেকটি আইনে আছে, কোনো মালিকপক্ষ যদি পাঁচজনের বেশি অবৈধ শ্রমিক রাখে তাহলে পাঁচবছরের জেল কার্যকর হবে।

 

২০২০ সালের ডিসেম্বর থেকে ‘রিক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ কর্মসূচিতে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৯২ হাজার ২৮১ জন অবৈধ অভিবাসী নিজ দেশে স্বেচ্ছায় ফিরে যাওয়ার জন্য নিবন্ধিত হয়েছে। তারমধ্যে ৯৯ হাজার ৪৭ জন ইন্দোনেশিয়ান, ২৬ হাজার ৮২১ জন বাংলাদেশি, ২৩ হাজার ৮৪৪ জন ভারতীয়সহ মোট ১ লাখ ৬২ হাজার ৮২৭ জন দেশে ফিরে গেছে। বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, এই মুহূর্তে মালয়েশিয়ার অভিবাসন চাপ সামলাতে অক্ষম। কেএলআইএ-তে অনথিভুক্ত অভিবাসীদের প্রক্রিয়া করার জন্য বিশটি কাউন্টার স্থাপন করা হলেও কাজ করছে মাত্র ১০টি। এতে প্রবাসিরা রয়েছেন চরম হতাশায়।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: