মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন

বিনা খরচে বাংলাদেশ থেকে কর্মী যাবে গ্রিস, সমঝোতা স্মারক সই

প্রকাশিতঃ বুধবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ১:১৯ অপরাহ্ন

কর্মী পাঠাতে গ্রিসের সঙ্গে সমঝো’তা স্মারক সই করেছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। এতে ইউরো’পের প্রথম দেশ হিসেবে গ্রিসের সাথে কর্মী পাঠানোর সম’ঝোতা স্মারক সই করল বাংলাদেশ। বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ ও গ্রিসের অভিবাসন ও শরনার্থী বিষয়ক মন্ত্রী পেনাজিয়োটিস মিতারাকি নিজ দেশের পক্ষে সমঝোতা স্মারকে সই করেন।

 

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে সমঝোতা স্মাক্ষর সইয়ের পর মন্ত্রী ইমরান আহমেদ জানান, সমঝোতা অনুযায়ী দেশটিতে পুরাতন ১৫ হাজার অনিয়মিত প্রবাসী বাংলাদেশিকে বৈধতা দেয়া হবে। বাংলাদেশিদের বৈধতা দিতে এ বিষয়ে গ্রিসে আইন পাশ করা হবে। এই আইন পাশ হওয়ার পর ছয় মাসের মধ্যে দেশটিতে থাকা অনিয়মিত বাংলাদেশিদের আবেদন করতে।

 

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী বলেন, সমঝোতা স্মারক সইয়ের ফলে আমাদের দেশের কর্মীরা নিরাপদে গ্রিসে গিয়ে বৈধভাবে কাজ করতে পারবে। বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হওয়ার পর সম্পূর্ণ নিয়োগকারীদের ব্যয়ে গ্রিসে যেতে পারবেন। এক্ষেত্রে গ্রিস যেতে আগ্রহীরা যেন কোনোভাবে কোনো দালাল বা প্রতারকের খপ্পরে না পড়েন, সে বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

 

গ্রিসের অভিবাসন ও শরনার্থী বিষয়ক মন্ত্রী জানান, অনিয়মিত বা অবৈধ পন্থার অভিবাসনকে নিরুৎসাহিত করতে সব সময় কাজ করছে গ্রিস। বৈধ অভিবাসন প্রক্রিয়াকে গতিশীল করতে বাংলাদেশের সাথে এই সমঝোতা স্মারক সই করা হয়েছে। কর্মী পাঠানোর পদ্ধতি ও কারিগরি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন মন্ত্রণালয়ের সচিব ডক্টর আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন। তিনি জানান, সম্পূর্ণ বিনা খরচে কর্মী যাবে গ্রিসে। নতুন কর্মীর পাশাপাশি বাংলাদেশি অনিবন্ধিত বা অবৈধ ১৫ হাজার অভিবাসীকে বৈধতা দেবে গ্রিস সরকার।

 

বাংলাদেশ থেকে ৫ বছরের চুক্তিতে প্রতি বছর ৪ হাজার কর্মী নেয়া হবে জানান প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ডক্টর আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন। তিনি বলেন, কৃষি কাজের জন্য গ্রিসে কর্মী চাহিদা রয়েছে। মূলত চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশিরা সেদেশে ৫ বছরের জন্য কাজের সুযোগ পাবেন। এমনকি এই কর্মীরা বছরে ৩ মাসের ছুটি কাটাতে দেশে আসতে পারবেন।

 

সমঝোতা অনুযায়ী, গ্রিসে কৃষি খাতে সিজনাল কর্মী নেয়া হবে। পরবর্তীতে আলোচনার ভিত্তিতে চাহিদা অনুযায়ী বিভিন্ন খাতে কর্মী নেবে দেশটি। তবে তাদের ৫ বছর মেয়াদ শেষে দেশে ফিরে আসতে হবে। এদিকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বলছে, কর্মীদের আবেদনের সময় বৈধ ট্রাভেল ডকুমেন্ট, বৈধ কাজের চুক্তিপত্র, অসুস্থতাজনিত ইন্স্যুরেন্সের প্রমাণপত্র জমা দিতে হবে এবং নির্ধারিত ফি বহন করতে হবে।

 

বাংলাদেশের সাথে সমঝোতা স্মারকটি আগামী এপ্রিলে গ্রিসের মন্ত্রিসভায় তোলা হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির অভিবাসন বিষয়ক মন্ত্রী। আর কবে থেকে কর্মী যাবে, কিভাবে কর্মী পাঠানো হবে, কারিগরি কমিটির বৈঠকের পর তা জানানো হবে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: