রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১১:০৭ অপরাহ্ন

স্বামীর মোটরসাইকেল থেকে পড়ে নারীর মৃত্যু, প্রাণে বাঁচলো কোলে থাকা মেয়ে

প্রকাশিতঃ সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ৭:৫৭ অপরাহ্ন

রংপুরের মিঠাপুকুরে স্বামীর মোটরসাইকেল থেকে ছি’টকে পড়ে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে হালিমা খাতুন (২৫) নামে এক নারীর মৃ’ত্যু হয়েছে। সৌভাগ্যক্রমে প্রাণে বেঁচে গেছে তার কোলে থাকা চার বছর বয়সী মেয়ে। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের দমদমা তেল পা’ম্প এলাকায় এ দুর্ঘ’টনা ঘটে।

নি’হত হালিমা খাতুন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জেনারেল অপারেশন থিয়েটারে (ওটি) সিনিয়র স্টাফ নার্স হিসেবে কর্মরত ছিলেন। স্থানীয় ও নিহ’ত নারীর কর্মস্থল সূত্রে জানা যায়, মিঠাপুকুরের বৈরাগীগঞ্জ থেকে স্বামীর মোটরসাইকেলে করে ৪ বছরের কন্যা সন্তানকে নিয়ে রংপুরের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন হালিমা। রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের দমদমা তেল পাম্প এলাকায় চলমান সড়কের সং’স্কার কাজের কারণে খানাখন্দ এবং বৃষ্টিতে রাস্তা পি’চ্ছিল হওয়ায় নিয়ন্ত্রণ হা’রিয়ে মোটরসাইকেল থেকে প’ড়ে যান হালিমা খাতুন।

এ সময় রংপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের চাকায় পি’ষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মা’রা যান তিনি। এ ঘটনায় তার মেয়ে ও স্বামী মিজানুর রহমান আ’হত হলেও প্রাণে বেঁ’চে গেছেন! নিহ’ত নারীর স্বামী মিজানুর রহমান বৈরাগীগঞ্জে বেসরকারি সংস্থা উদ্দীপনের শাখা ব্যবস্থাপক হিসেবে কর্মরত। নি’হত হালিমা খাতুনের বাড়ি পীরগাছা উপজেলার দেওতি হাউদারপাড় গ্রামে।

রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নার্সিং বিভাগের ফোরকান আলী জানান, হালিমা খাতুন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সিনিয়র স্টাফ নার্স হিসেবে কর্মরত ছিলেন। মিঠাপুকুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) জাকির হোসেন জানান, মৃ’তদেহ পীরগঞ্জ বড়দরগাহ হাইওয়ে পুলিশ নিয়ে গেছে। আইন’গত প্রক্রিয়া তারাই দেখবে।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: