বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১২:৪০ অপরাহ্ন

সৌদি প্রবাসী স্বামীর অর্থ হাতিয়ে পরকীয়ায় ঘর ছেড়েছেন সহকারী শিক্ষিকা

প্রকাশিতঃ বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ৩:২০ অপরাহ্ন

রাজবাড়ী সদর উপজেলার বাণিবহ গ্রামে সৌদি প্রবাসী স্বামীর অর্থ ও সম্পদ হা’তিয়ে নিয়ে পরকী’য়া প্রেমিক এক ফায়ারসার্ভিস কর্মীর সাথে সংসার করার অভি’যোগ উঠেছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। এ অভি’যোগে আদা’লতে মা’মলা দায়ের করেছেন রাজবাড়ী সদর উপজেলার বাণিবহ গ্রামের মৃ’ত আ: মোতালেবের ছেলে সৌদি প্রবাসী আরব আলী মিয়া। মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাজবাড়ীর ১ নম্বর আমলি আদালতে এ মামলা করেন তিনি।

 

মামলার আসামিরা হলেন – গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা থানার চরপাড়া কৈচড়া গ্রামের মো: আব্দুল্লাহর ছেলে ফায়ার সার্ভিসে কর্মরত মো: সামছুল হক ও প্রবাসী আরব আলী মিয়ার স্ত্রী বর্তমান মুরগী ফার্ম রিফুজিপাড়া এলাকার ভাড়াটিয়া বার্থা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা মোসা: লায়লা পারভীন। মামলায় ৩ সন্তানকে সাক্ষী হিসেবে রাখা হয়েছে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, মোসা: লায়লা পারভী’নের সাথে ২৫ বছর আগে আরব আলী মিয়ার বিয়ে হয়। আরব আলী মিয়া দীর্ঘ ৭-৮ বছর সৌদি আরবে কর্মরত থেকে তার উপার্জিত অর্থ লায়লা পারভীনের রাজবাড়ী সোনালী ব্যাংক শাখার সঞ্চয়ী হিসাবের মাধ্যমে প্রেরণ করেন। তিনি গত ২০২০ সালের ২৭ জুলাই থেকে সর্বশেষ ২০২১ সালের ২২ নভেম্বর তারিখে এক লাখ টাকাসহ আনুমানিক প্রায় ৩৫ লাখ টাকা স্ত্রীর হিসাব নম্বরে প্রেরণ করেন।

ওই টাকা ফায়ার সার্ভিসকর্মী সামসুল হক আত্মসাৎ করার মতলবে ফুসলিয়ে লায়লা পারভীনকে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে ফেলেন। বাদী বাড়িতে না থাকার সুযো’গে সামসুল মাঝেমধ্যে বাড়িতে আসেন এবং বাদীর অর্জিত টাকার প্রতি লোলুপ দৃষ্টি দিয়ে টাকা আত্মসা’তের ষ’ড়য’ন্ত্র করেন। লায়লা পরভীন বিভিন্ন কৌশলে সাক্ষী আমির সেখের কাছ থেকে ২০২১ সালের ১১ নভেম্বর এক লাখ টাকা এবং ২২ নভেম্বর এক লাখ টাকাসহ সোনালী ব্যাংক ফরিদপুরের মধুখালী শাখার মাধ্যমে ২ লাখ টাকা ও নগদ টাকাসহ ৬ লাখ টাকা গ্রহণ করে। পরে লায়লা পারভীন টাকা পরিশো’ধ না করে ঘুরাতে থাকে।

চলতি বছরের ২৭ জা’নুয়ারি বাদী সৌদি আরব থেকে এসে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে তার স্ত্রী লায়লা পারভীন কোথায় আছে তা জানতে চাইলে সা’ক্ষীগণ বলেন, লায়লা পারভীন সামসুল হকের সাথে টাকা-পয়সা চু’রি করে নিয়ে পা’লিয়েছে। পরে বিভিন্ন মাধ্যমে যোগাযোগ করলে সামসুল হক প্রবাসীকে হুমকি দিয়ে বলে, তোমার বাড়ি থেকে আসবাবপত্র, টাকা-পয়সা আনছি এবং তোমার স্ত্রীকেও আর ফেরত দিবো না।

পরকীয়া প্রে’মিকের সাথে জমি বন্ধক রেখে ও পুকুর লীজ রেখে প্রাপ্ত টাকা ও নগদ টাকাসহ সমস্ত মালামাল চু’রি করে নিয়ে যায় বলেও অভি’যোগ করেছেন প্রবাসী স্বামী আরব আলী। বাদী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রেহেনাজ পারভীন সালমা মাম’লা দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ বিষয়ে অভিযু’ক্ত মো: সামছুল হক ও মোসা: লায়লা পারভীনের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও ফোন রিসিভ না করায় মন্তব্য দেয়া সম্ভব হলো না।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: