বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০২:০২ পূর্বাহ্ন

কাতারের জন্য ৬ লাখ টি-শার্ট তৈরি করলো বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

কাতার বিশ্বকাপের জন্য ৬ লাখ পিস ফিফার অফিশিয়াল টি-শার্ট তৈরি হলো চট্টগ্রামের একটি পোশাক কারখানায়। দুই দফায় ৩ লাখ পিস করে জাহাজে পাঠানো হচ্ছে রাশিয়ায়। যার রফতানিমূ’ল্য প্রায় ১৫ লাখ মার্কিন ডলার বা ১৩ কোটি টাকা। প্রতিষ্ঠানটি এর আগে ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপ ও ২০২০ সালের ইউরো কাপের টি-শার্ট, জ্যা’কেটও তৈরি করেছিল। তাদের প্রত্যাশা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর জার্সি তৈরি করা।

নগরের বন্দর থানাধীন গোসাইলডাঙ্গার বারিক মিঞা হাইস্কুলের পাশের সনেট টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড নামের কারখানায় ফিফার জন্য বিশ্বমানের এসব টি-শার্ট তৈরি হয়েছে। অর্ডার নেওয়ার পর থেকে নিখুঁ’তভাবে এসব টি-শার্ট নির্দিষ্ট সময়ে শি’পিংয়ের জন্য রীতিমতো যু’দ্ধ করেছে প্রতিষ্ঠানটির শ্রমিক, কর্মকর্তা ও উদ্যো’ক্তারা। বয়’স, ম্যানস ও উইম্যানস ক্যাটাগরির ৬টি ডিজাইনে য’ত্নের সঙ্গে টি-শার্টগুলো তৈরির পর একাধিক টিম মান যাচাই করেছে। যাবে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’র ভাবমূ’র্তি বৃ’দ্ধি পায়।

সনেট টেক্সটাইলের পরিচালক গাজী মো. শহীদুল্লাহ জানান, ৬টি ডিজাইনে ৬ লাখ পিসের অর্ডার পাওয়ার পর আমরা কার্যক্রম শুরু করি। ডিজাইন অ্যা’প্রুভ, মেটারিয়ালস অ্যা’প্রুভ করা হয়। এটি বিশ্বমানের প্রডাক্ট, এর শতভাগ কোয়ালিটি মেনটেইন করতে হয়। এর সব রাইটস ফিফার।

বিকেএমইএর পরিচালক গাজী মো. শহীদুল্লাহ বলেন, এর আগেও আমাদের প্রতিষ্ঠান থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপ ও ইউরো কাপের টি-শার্ট রফতানি করেছিলাম। আমরা নিয়মিত পোশাক রফতানি করি। বিশ্বের বড় একটি ইভেন্টের টি-শার্ট তৈরি করতে পেরে আমরা আনন্দিত। সনেট টেক্সটাইলের কর্মকর্তারা জানান, ২০১৮ সালে ফিফার টি-শার্ট, জ্যাকেট তৈরির জন্য কোয়ালিটি, কমিটমেন্ট ফুল-ফিল করেছে সনেট টেক্সটাইল।

এর সঙ্গে বাংলাদেশের ভাবমূ’র্তি জড়িত। তাই যত্নের সঙ্গে এসব টি-শার্ট তৈরি হয়েছে। গত ফেব্রুয়ারিতে কাতার বিশ্বকাপের টি-শার্ট তৈরির জার্নি শুরু হয়। দুই সপ্তাহে ৩ লাখ পিস তৈরি করে রাশিয়ায় শিপিং করতে সক্ষ’ম হয় প্রতিষ্ঠানটি। বাতি ৩ লাখ পিস টি-শার্টও তৈরি হয়ে এখন রাশিয়ায় কার্যাদেশ দেওয়া প্রতিষ্ঠানের কাছে পৌঁছানোর অপে’ক্ষায়। চট্টগ্রামভিত্তিক সনেট টেক্সটাইলের ‘সনেট ফ্যাশনস লিমিটেড’ রয়েছে কালুরঘাট ও মোহরায়, সনেট প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং লিমিটেড রয়েছে বন্দর থানার ফকিরহাট এলাকায়।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: