বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১২:০৬ অপরাহ্ন

বাইডেন ভুল বুঝলেও আমি পরোয়া করি না: সৌদি যুবরাজ সালমান

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ৩ মার্চ, ২০২২, ৫:১৯ অপরাহ্ন

সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমানের কোনো বিষয় নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ভু’ল বুঝলেও তাতে পরোয়া করেন না তিনি। যুবরাজ বলেন, তাতে আমার কিছু যায় আসে না। বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) দ্য আটলান্টিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এমন দাবি করেন। পশ্চিমা বিশ্বে এমবিএস নামে পরিচিত মোহাম্মদ বিন সালমান বিশ্বের শীর্ষ তেল উৎপানদকারী দেশের কার্যত শাসক।

 

উপসাগরীয় দেশটির নিরঙ্কুশ রাজতন্ত্রের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হ’স্তক্ষে’প না-করতে যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁ’শিয়া’রি করে দিয়েছেন তিনি। যুবরাজ বলেন, খুবই সাধারণ কথা, আমি তাকে পরো’য়া করি না। আমেরিকার স্বার্থ নিয়ে চিন্তা করা বাইডেনের কাজ। বাইডেনের সঙ্গে কোনো বিষয়ে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে কি-না, জানতে চাওয়া হয়েছিল তার কাছে। আমাদের আমেরিকা নিয়ে লে’কচার দেওয়ার অধিকার নেই। অন্যের ক্ষেত্রেও বিষয়টা একই।

 

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের ঘনি’ষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ২০২১ সালে নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন দায়িত্ব নেওয়ার পর সৌদি আরবের মানবাধিকার রেকর্ড এবং ইয়েমেন ‍যু’দ্ধে দেশটির জ’ড়িত থাকার বি’রু’দ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন।

 

বাইডেন প্রশাসন ২০১৮ সালে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি হ’ত্যা’র ঘটনায় যুবরাজ সালমানকে জ’ড়িয়ে একটি ত’দন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কিন্তু ওয়াশিংটন পোস্টের ওই সাংবাদিককে’ হ’ত্যা’য় জড়িত থাকার অভি’যোগ অ’স্বীকার করেছেন এমবিএস। যুক্তরাষ্ট্র রাজব’ন্দিদের মু’ক্তি দেওয়ার জন্যও সৌদি আরবের ওপর চাপ সৃ’ষ্টি করেছে।

 

যুবরাজ বলেন, ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে জামাল খাসোগি হ’ত্যা’র ঘটনায় তার বি’রু’দ্ধে অভি’যোগের আ’ঙুল ওঠায় তার কাছে মনে হয়েছে যেন নিজের অধিকা’রই ল’ঙ্ঘ’ন হয়েছে। সৌদি যুবরাজ বলেন,“আমি মনে করি মানবাধিকার আইন আমার বেলায় প্রযোজ্য হয়নি… মানবাধিকারের সার্বজনীন ঘোষণাপত্রের আর্টিকেল ১১ অনুযায়ী, কোনও ব্য’ক্তির দো’ষ প্রমাণ না হওয়া পর্যন্ত সে নির্দোষ।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: