বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ১২:৫০ পূর্বাহ্ন

দুই ভাইয়ের মৃত্যু: সারাদেশে নাপা সিরাপ পরীক্ষা করার নির্দেশ

প্রকাশিতঃ রবিবার, ১৩ মার্চ, ২০২২, ৭:২৯ পূর্বাহ্ন

ব্রাক্ষণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামে নাপা সিরাপ খেয়ে একই পরিবারের দুই শিশুর মৃ’ত্যুর অভি’যোগ উঠেছে। এ অভিযো’গের সত্যতা যাচাই করতে সারাদেশ থেকে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস এর উৎপাদিত নাপা সিরাপের নমুনা পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে ঔষধ প্রশাসন অদিপ্তর। বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ে কর্মরত সব কর্মকর্তাকে তাদের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় অবস্থিত পাইকারি ও খুচরা ফার্মেসি পরিদর্শন করে নির্দিষ্ট ব্যাচের নাপা সিরাপের নমুনা পরীক্ষা ও বিশ্লেষণের জন্য কেন্দ্রীয় ঔষধ পরী’ক্ষারাগারে পাঠানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

 

শনিবার (১২ মার্চ) ঔষধ প্রশাসন অদিপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ ইউসুফ স্বাক্ষরিত এক জরুরি অফিস আদেশে এ নির্দেশনা প্রদান করা হয়। ঔষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের পরিচালক ও মুখপাত্র মো. আইয়ুব হোসেন বলেন, নাপা সিরাপ খেয়ে দুই শিশুর মৃ’ত্যুর অভিযো’গটি খতিয়ে দেখতে এরই মধ্যে কার্যক্রম শুরু করেছে অদিপ্তর। সারাদেশ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে আনার পাশাপাশি দুজন পরিচালকের নেতৃত্বে দুটি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন, একটি কমিটি আশুগঞ্জের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবে। আরেকটি কমিটি গাজীপুরে বেক্সিমকোর ওষুধ কারখানা পরিদর্শন করে নির্দিষ্ট ব্যাচের উৎপাদিত (প্যারাসিটামল ১২০ মি. গ্রাম/৫ মি. গ্রাম, ব্যাচ নাম্বার ৩২১১৩১২১, উৎপাদন তারিখ ১২/২০২১, মেয়াদোত্তীর্ণ তারিখ ১১/২০২৩) ওষুধ কী অবস্থায় রয়েছে তা পরীক্ষা-নিরী’ক্ষা করে দেখবে।

 

এর আগে বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) রাতে আশুগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামে নাপা সিরাপ খেয়ে ইয়াছিন খান (৭) ও মোরসালিন খান (৫) নামে দুই শিশুর মৃ’ত্যুর অভি’যোগ তোলেন স্বজনরা। দুই শিশুর মৃ’ত্যুর অভি’যোগ ওঠার পর ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্যারাসিটামল ‘নাপা সিরাপ’ বিক্রি সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করে জেলা কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতি।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: