বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৩৪ অপরাহ্ন

তোরে জন্ম দিছি বাবা, দুধ খাইয়ে বড় করছি, আমারে মারিস না: মায়ের আকুতি

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ২৭ মে, ২০২১, ৫:৩২ অপরাহ্ন

পটুয়াখালীর বাউফলে নিজের ছেলের ‘নি”র্যা’ত’ন থেকে বাঁচতে এক মায়ের আকু’তি ‘আমি তোরে জন্ম দিছি বাবা, দুধ খাইয়ে বড় করছি, আমারে মা’রি’স না’। এমন আকু’তির পরও পাষ’ণ্ড ছেলের ‘নি”র্যা’ত’ন থেকে ‘মু’ক্তি মে’লেনি সত্তর বছরের বেশী বয়সী গর্ভধারিনী মা লালমতি বেগমের। ছেলে আনোয়ার খন্দকারের একের পর এক লা’ঠি’র বে’ধড়’ক ‘মা”রধ’রে’র কারণে অ’সুস্থ হয়ে পড়েছেন মা লালমতি। ‘পি”টি’য়ে আ’হ’ত করা হয়েছে বোন মরিয়ম বেগমকেও।

 

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) পটুয়াখালীর বাউফলের মদনপুরা ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রামে এ ঘটনার পর স্থানীয়দের সহায়তায় আহত মা-মেয়ে চিকিৎসার জন্য বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভার্তি হয়েছেন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মদনপুরা ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রামের মৃ’ত রত্তন আলী খন্দকারের ছেলে আনোয়ার খন্দকার বাবার ‘মৃ’ত্যু’র পর রেখে যাওয়া সম্প’ত্তি অন্য ভাই-বোনকে না দিয়ে নিজের করে নিতে প্রায়ই মাকে ‘অ’ত্যা’চা’র আর ‘নি”র্যা’ত’ন করেন।

 

তার দা’বি, যারা বাড়িতে থাকেন না, তারা আর বাড়িতে আসতে পারবে না। কোনো জমি-জমার ভা’গ কাউকে দেওয়া হবে না। তাদের বাড়িতে কোনো আশ্রয়ও দেয়া যাবে না। বৃহস্পতিবার একই কারণে মা ও বোনের সাথে এ নিয়ে আনোয়ারের বা’কবিত’ণ্ডা হলে পরে ছেলে আনোয়ার তার মাকে ‘মা’রধ’র করেন। আহত মরিয়ম বেগম বলেন, ‘মা”রধ’রের এক পর্যায়ে তাকে (মাকে) দা দিয়ে ‘কো”পা’তে যান আনোয়ার খন্দকার। আমাকে কু’ড়া’লের আ’চারি (হাতল) দিয়ে ‘মা”রধ’র করেন। মা আমাকে বাঁচাতে আসলে লা’ঠি দিয়ে মায়ের রানে ও পিঠে আ’ঘা”ত করেন।

 

মা লালমতি বেগম বলেন, ‘ওর বাবার রেখে যাওয়া সব সম্পত্তি একা নিতে চায়। অন্যদের দিতে রাজি না। এজন্য প্রায়ই আমাকে অ’কথ্য ভাষায় গা’লিগা’লাজ ও ‘মা”রধ’র করে। আজকেও আমার মেয়েকে ‘মা”রধ’র করেছে। আমি বাঁচাতে গেলে আমাকেও ‘মা”রধ’র করে। এ বিষয়ে জানতে অ’ভিযু’ক্ত আনোয়ার খন্দকারের মুঠোফোনে একাধিবার কল করলেও রিসিভ না করায় তার মন্তব্য পাওয়া যায়নি। বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আল-মামুন বলেন, লিখিত অ’ভিযো’গ পেয়েছি। তদ’ন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: