শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:১০ অপরাহ্ন

মালয়েশিয়ায় নিয়োগকারীদের বিরুদ্ধে বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

প্রকাশিতঃ রবিবার, ৬ জুন, ২০২১, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

মালয়েশিয়ায় নিয়োগকা’রীদের বিরু’দ্ধে বি’ধি ল’ঙ্ঘ’নের অভিযো’গ উঠেছে। ম’হামা’রি ভা’ইরা’স’ সংক্র’মণরো’ধে সরকারের জা’রি করা মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (এমসিও) এবং স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতি (এসওপি) ল’ঙ্ঘ’ন করায় নিয়োগকারীদের বিরু’দ্ধে এরই মধ্যে ১১২০টি অভিযো’গ পেয়েছে মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়।

 

অভিযো’গের প্রেক্ষিতে খোদ মানবসম্পদমন্ত্রী তদন্তে নেমেছেন। শুক্রবার নিলাই এলাকার একটি ফ্যাক্টরি পরিদর্শন শেষে মা’নবসম্পদমন্ত্রী দাতুক সেরি এম সারাভানান সাংবাদিকদের বলেছেন, অভিযোগগুলোর মধ্যে হলো- নি’য়োগকারীরা ওভারটাইম কাজ করতে বা’ধ্য করা এবং কর্মক্ষেত্রে ক’র্মচারীদের শারীরিক উপস্থিতি। তিনি বলেন, শ্রম বিভাগের (জেটিকে) মাধ্যমে মন্ত্রনালয় কর্তৃক অভি’যোগ তদন্ত করা হচ্ছে, যা এসওপি ল’ঙ্ঘনের দায়ে অ’ভিযুক্ত নি’য়োগকারীদের বিরু’দ্ধে ৫০ হাজার রিঙ্গিত জরি’মানার বিধানও রয়েছে।

 

মন্ত্রী বলেন, দয়া করে বর্তমান পরিস্থিতিতে (নিয়োগকর্তারা) সুবিধা নেবেন না। সরকার কর্মক্ষেত্রে কর্মীদের সংখ্যা হ্রাস করতে বলে’ছে, এসওপি অনুসরণ করতে বলেছে। ন্যূনতম আবাসন ও কর্মচারী সুবিধাদি আইন ১৯৯০ (আইন ৪৪৬) এবং এমসিও ৩.০ এসওপির ন্যূনতম মানদণ্ডগুলো অনুসরণ ক’রার অনুরুধ জানিয়ে মানব সম্পদ মন্ত্রী বলেন,

 

৪৪৬ আইনের আনুষ্ঠানিকতায় এখন পর্যন্ত দেশব্যাপী ১৯ হাজার ১০ জন নিয়োগকারীর ১ লাখ ৬ হাজার ৫৯৩ জন শ্রমিকের আবা’সন পরিদর্শন করা হয়েছে। এছাড়া শ্রম আইনের অধীনে মোট ৭৪২টি অভিযোগের মধ্যে ১২৫টির বিরু’দ্ধে মাম’লা রয়েছে এবং ৪৯টির বিরু’দ্ধে ৩ লাখ ৫২ হাজার ‘রি’ঙ্গিত জরি’মানা করা হয়েছে।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: