শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫৪ অপরাহ্ন

টিকেটের লোভে দেশে এসে জেলে যেতে হলো সৌদি প্রবাসীকে

প্রকাশিতঃ শনিবার, ১৯ জুন, ২০২১, ৪:৫৮ অপরাহ্ন

কাতার প্রবাসী রফিকউদ্দিন, সৌদি প্রবাসী জামাল মিয়া, বাহরাইন প্রবাসী জব্বার আলী। তারা প্রত্যেকে এখন বাংলাদেশে জেলে। কিন্তু কেন?

কাতার প্রবাসী রফিকউদ্দিন। ফ্লাইটের ২ দিন আগে এক লোক এস বললো ভাই আমার মা অসুস্থ। ১ বক্স তার জন্য ওসুধ। ভাই আপনি শুধু বিমানবন্দরে গিয়ে আমার ভাইয়ের হাতে দিলেই হবে। নিজের মা মারা গেছে অনেক আগে। রফিকউদ্দিনের মায়া হলো। সেই বক্সটি নিয়ে ঢাকায় আসলো। বিমানবন্দরে ধরা পড়লো বক্স ভর্তি মা’দক।

সৌদি প্রবাসী জামাল মিয়া দেশ আসার আগে, তাকে এক লোক অফার করলো ১০টা সোনার বার সঙ্গে নিয়ে গেলেই টিকিটের টাকা দেওয়া হবে। কোন ঝামেলা নাই। লোভে পড়ে রাজি হলেন জামাল মিয়া। দেশে এসে হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরে ধরা পড়ে জেলে। যে তাকে নিতে বলেছিলো, তার কিন্তু আসলে ঝামেলা হয় নাই।

বাহরাইন প্রবাসী জব্বার আলী। তার বন্ধু তাকে একটা চার্জার ফ্যান দিয়েছে। ঢাকায় নিয়ে যেতে হবে। এজন্য তাকে ৫ হাজার টাকা দিতেও চেয়েছিলো তার বন্ধু। বন্ধুর একটা ফ্যানই তো, টাকা নিননি জব্বার। ঢাকায় এসে ধরা পড়লেন জব্বার। কারণ চার্জার ফ্যানের ভিতরে লুকানো ছিলো ২ কেজি সোনা।

 

প্রিয় প্রবাসী, লোভ পড়ে কারণ অ’বৈধ মালামাল নিজের সঙ্গে বহন করবেন না। যতই পরিচিত হোক অন্যের মালামাল বহন না করাই উত্তম। খুব কাছের কেউ হলেও নিজের চোখের সামনে পণ্যটি দেখে, যাচাই করে সঙ্গে নেবেন। মনে রাখেন, পণ্য যারই হোক, বহনকারী হিসেবে সেই পণ্যের দায় দায়িত্ব আপনার। অ’বৈধ পণ্য বহন করে নিজের বিপদ ঢেকে আনবেন না।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: