শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:২২ অপরাহ্ন

৫ বছর বয়সে হারিয়ে যাওয়ার ২০ বছর পর ফিরে এলো শাহনাজ!

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ২২ জুন, ২০২১, ৪:১২ অপরাহ্ন

২০ বছর পর টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার জিগাতলা গ্রামের আবু সাঈদের মেয়ে হা’রিয়ে যাওয়া শাহনাজকে খুঁ’জে পেল তার পরিবার। জানা যায়, ৫ বছর বয়সে শাহনাজের মা-বাবার বি’চ্ছেদ ঘটে। এরপর তার বাবা আরেকটি বিয়ে করেন। বিয়ের পর শাহনাজের সৎমা তাকে নিয়ে যেতে চান। কিন্তু পরিবারের কেউই রাজি ছিল না। পরে একটি পরিবারের কাছে শাহনাজকে দেওয়া হয় লালনপালন করার জন্য।

 

একদিন সেই পরিবারের সঙ্গে ঢাকায় বে’ড়াতে গিয়ে শাহনাজ হারিয়ে যায়। এরপর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তখন ঢাকার তেজগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন শাহনাজের বাবা। শাহনাজের চাচাতো ভাই মোহাম্মদ রায়হান বলেন, সম্প্র’তি রে’ডিও উপস্থাপক আর জে কিবরিয়ার ‘আপন ঠিকানা’ নামের একটি অনুষ্ঠানে শাহনাজকে নিয়ে একটা প্রো’গ্রাম করা হয়। সেই ভি’ডিও’টি ফেসবুকে ‘হয়। পরে জিগাতলা গ্রামের প্রবাসী জুয়েল ভিডি’ওটি দেখে খবর দেন। পরিচয় ও হা’রিয়ে যাওয়ার ঘটনা মিলে যাওয়ায় তাকে আন’তে ঢাকা যাই। ১৯ জুন স্বামী-সন্তানসহ শাহনাজকে ফিরে পাই।

 

শাহনাজ বলেন, মা-বাবার বি’চ্ছে’দের পর পাঁচ বছর বয়সে আমাকে টাঙ্গাইলের একটি পরিবারের কাছে লালনপালন করার জন্য দেওয়া হয়। ওই পরিবার ঢাকায় নি’য়ে যায়। তাদের বাসায় দুই বছর থাকার পর একদিন হা’রিয়ে যাই। এরপর ঢাকার খিলগাঁও বাসাবোর কদমতলা এলাকার মাশুক আহমেদ আমাকে পেয়ে তার বাসায় নেন। সেখানেই বড় হই। তারা আমাকে মেয়ের মতো করেই বড় করেছেন। তিনি বলেন, তারা আমাকে নওগাঁর আব্দুর কাদেরের সঙ্গে বিয়ে দেন। স্বামী বিএসসি ইঞ্জিনিয়ার। টেক্সটাইলস কোম্পানিতে চাকরি করছে। এদিকে আমার স্বামীও আমার পরিবারকে খুঁজে পাওয়ার বিষয়ে আন্তরিক ছিল। পরে ‘আপন ঠিকানা’ প্রোগ্রামের মাধ্যমে আমার পরিবারকে খুঁজে পাই।

 

শাহনাজ বলেন, ২০ বছর পর পরিবারকে খুঁজে পাব, সেটা ভাবতে পারিনি। আল্লাহ আমাদের মি’লিয়ে দিয়েছেন। আমার শ্বশুর-শাশুড়ি অনেক ভালো মনের মানুষ। তারা আমাকে নিজের মেয়ের মতোই আদর-যত্ন করেন। শাহনাজের দেড় বছরের সন্তান নিয়ে পরিবারের সঙ্গে বেশ আন’ন্দে সময় কা’টা’চ্ছেন। তার ফুটফুটে শিশুসন্তানকে আ’দর করছেন তার চাচা, ভাই ও ভাতিজারাসহ অনেকেই। এদিকে এত বছর পর বাড়িতে ফিরে আসায় তাকে দেখতে বাড়িতে ভিড় করছে গ্রামের মানুষ। শাহনাজের চাচা তোজাম্মেল হক বলেন, পাঁচ বছর বয়সে হা’রিয়ে যাওয়া শাহনাজকে আমরা ফিরে পেয়েছি। দীর্ঘ ২০ বছর পর শাহনাজ যেমন পরিবার পেয়ে খুশি, আমরাও তাকে পেয়ে অনেক খুশি।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: