শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন

কঠোর লকডাউন শিথিলের সিদ্ধান্ত, শর্তসাপেক্ষে চলবে গণপরিবহন

প্রকাশিতঃ সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১, ১০:২৩ পূর্বাহ্ন

মহামারি করোনা ভাইরাসের উচ্চ সংক্রমণের মধ্যেও কোরবানির ঈদ ও পশুর হাট বিবেচনায় নিয়ে ১৫ জুলাই থেকে ৮ দিনের জন্য লকডাউন শিথিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এসময়ে শর্তসাপেক্ষে চলবে গণপরিবহন। তবে ঈদের পর ফের ১৪ দিনের জন্য কঠোর লকডাউন দেয়া হবে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্র গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছে।

 

সরকারের সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এ বিষয়ক নথি অনুমোদন হয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে এসেছে। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার অনুমতি পেলেই যেকোনও সময় প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। সূত্র জানায়, ঈদ উপলক্ষে শিথিল হওয়া লকডাউনের ৮ দিন স্বাস্থ্যবিধি মেনে এক আসন ফাঁকা রেখে চলবে সব গণপরিবহন। খুলে দেয়া হবে দোকানপাট ও শপিংমল। এসময়ে সরকারি সব অফিস ভার্চুয়ালি খোলা থাকলেও বন্ধ থাকবে বেসরকারি অফিস।

 

১৫ জুলাই সকাল ৬টা থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত লকডাউন শিথিলের আদেশ কার্যকর থাকবে। ঈদের পর আবারও দুই সপ্তাহের লকডাউনে যাবে দেশ। ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপ সামাল দিয়ে যাত্রা নির্বিঘ্ন করতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন।

 

২১ দফা নির্দেশনা দিয়ে গত ১ জুলাই থেকে সারা দেশে ৭ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। প্রথম দফায় ৭ জুলাই মধ্যরাতে চলমান এ লকডাউনের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল। তবে এরইমধ্যে কোভিড-১৯ জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি আরও ৭ দিন লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর সুপারিশ করে। সেই সুপারিশ আমলে নিয়ে দ্বিতীয় দফায় ৭ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ বাড়ানো হয়।

 

এবারের কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে প্রথম দিন থেকেই মাঠে মোতায়েন করা হয় পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ও সেনাবাহিনী। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় বের হওয়ায় রাজধানীসহ সারা দেশে কয়েক হাজার মানুষকে আটক করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: