শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৩৪ পূর্বাহ্ন

অবশেষে চালু হচ্ছে ঢাকা-মালয়েশিয়া‌ ফ্লাইট!

প্রকাশিতঃ সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১, ১০:১৮ পূর্বাহ্ন

মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স এর ২৯ তারিখ রাত ২:০০ টা থেকে ঢাকা টু মালয়েশিয়া‌ প্রথম ফ্লাইট। মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স সিভিল এভিয়েশন থেকে অনুমতি দিয়েছে মালয়েশিয়া ফ্লাইট পরিচালনা করার জন্যে। বর্তমানে যারা বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়াতে যেতে চাচ্ছেন চাইলে আপনারা যেতে পারবেন ধন্যবাদ।

 

আরও পড়ুন::: মালয়েশিয়ায় রি-হেয়ারিং ও ৬পি সার্ভিস সেক্টর বৈধতার সুযোগ

মালয়েশিয়া সরকার গতবছর ১৬ ই নভেম্বর থেকে মালয়েশিয়া অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতা দিতে রিক্যালিব্রেশন নামে একটি প্রোগ্রাম চালু করে। এর মূল লক্ষ্য ছিল নিয়োগকর্তা কতৃক সরাসরি নিবন্ধন ও সেচ্ছায় দেশে ফেরত যাওয়া। সার্ভিস সেক্টর টি একমাত্র মালয়েশিয়ার লোকালদের জন্য বরাদ্দ রেখে অনন্য ঝুকিপূর্ণ সেক্টর গুলো রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম চালু করে। প্রথমে শুধু নির্মান, উৎপাদন, চাষ ও কৃষি খাতে বাংলাদেশে সহ সোর্সকান্ট্রির ১৫ টি দেশের বিদেশি নাগরিকদের বৈধতা পাবে।

 

এই বৈধতার সুযোগটিতে সরকার নিবন্ধনতিত প্রাইভেট এজেন্সি গুলো সুযোগ না পাওয়ায় অনন্য বারের মত এবারে বৈধতা প্রোগ্রামটি আশানুরূপ সাফল্য অর্জন করতে পারেনি গত ৬ মাসে। তাই বাধ্য হয়েই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ও মানব সম্পদ মন্ত্রণালয় যৌথ ওয়ার্কিং কমিটির সিদ্ধান্তে এক বৈঠকে সার্ভিস সেক্টর টি বিদেশি নাগরিকদের জন্য উম্মুক্ত করে দেওয়া হয় ২২ শে এপ্রিল। চলমান রিক্যালিব্রেসি প্রোগ্রাম বাস্তবায়ন ও সফল করেত নিয়োগ কর্তার পাশাপাশি বেসরকারী কর্মসংস্থান সংস্থা আইন ১৯৮১ (আইন ২৪৬) এর অধীন লাইসেন্স প্রাপ্ত বেসরকারী কর্মসংস্থান এজেন্সিগুলিকে (এপিএস), সম্পৃক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

 

প্রাইভেট এজেন্সি গুলো এখন থেকে সার্ভিস সেক্টরের আন্ডারে চারটি সাব সেক্টর- রেস্তোরাঁ, কার্গো, পরিষেবা এবং হোলসেল ও রিটেইলারে আবেদন করতে পারবে । তবে এ ক্ষেত্রে নিয়োগকর্তারা সরাসরি ইমিগ্রেশন ও লেবার ডিপার্টমেন্টের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করতে হবে ।এ দিকে মালয়েশিয়া সরকার ২০১১ সালে ৬ পি এবং ২০১৬ সালে রি-হায়ারিং প্রোগ্রামে নাম নিবন্ধন করেও বৈধ হতে পারেননি সে সকল বিদেশি নাগরিকরা বৈধতা নিতে নিবন্ধিত হতে পারবে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হামজাহ জয়নুদিন জানিয়েছেন। এ ছাড়া যে সকল কর্মী তাদের কোম্পানি থেকে পালিয়ে অন্যত্রে চলে গেছে তবে তাদের বিরুদ্ধে কোম্পানি কর্তৃক যদি কোনো পুলিশ রিপোর্ট না থাকে তাহলে তারাও বৈধ হতে পারবেন।

 

এদিকে স্থানীয় ফিশিং জাহাজে কর্মরত বিদেশি নাগরিকদের স্বল্প মেয়াদী ওয়ার্কিং ভিজিট পাস ( পিএলকেএস) ভিসাধারীদের নবায়নের জন্য ৩১ শে ডিসেম্বর ২০২১ সরকারি ডেডলাইন স্থগিতাদেশ ঘোষণা করেছে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটি বৈঠকে।তবে ৩১ শে ডিসেম্বর ২০২১ এর পর থেকে স্থানীয় ফিশিং জাহাজে কর্মরত সমস্ত বিদেশি নাগরিকদের জন্য স্বল্প মেয়াদী ওয়ার্কিং ভিজিট পাস বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।এ দিকে রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রাম এ পর্যন্ত এক লাখ ৪৫ হাজার ৮৩০ জন অভিবাসী কর্মী নিবন্ধিত হয়েছেন। এর মধ্যে ৭৩ হাজার ৫০৬ জন বৈধতা পেতে নিবন্ধন করেছেন এবং ৭২ হাজার ৩২৪ জন অভিবাসী তাদের নিজ নিজ দেশে ফিরে যেতে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মালয়েশিয়ার এই বৈধতা প্রোগ্রাম রিক্যালিব্রেশন চলবে ৩০ শে জনু ২০২১ পযন্ত।

 


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: