শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:২৭ অপরাহ্ন

দুবাইয়ে মাহজুজ লটারির ড্রয়ের ১১৬ কোটি টাকার বিজয়ী জুনায়েদ

প্রকাশিতঃ সোমবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ৪:৩৮ অপরাহ্ন

সংযুক্ত আরব আমিরাতে মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে বড় শত কোটি টাকার মাহজুজ লটারির ড্রয়ের প্রথম বিজয়ীকে পাওয়া গেছে। পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত দুবাইয়ে বসবাসরত ৩৬ বছর বয়সী এক চালক একেবারে শেষ মুহূ’র্তে টিকেট কিনে আমিরাতের শত কোটি টাকার এই লটারির প্রথম পুরস্কার বি’জয়ী হয়েছেন।

 

৫০ মিলিয়ন আমিরাতি দিরহাম (বাংলাদেশি প্রায় ১১৬ কোটি ৪৭ লাখ ৭০ হাজার ১৮৪ টাকা) জয়ী ওই পাকিস্তানির নাম জুনাইদ রানা। তিনি মাহজুজ লটারির প্রথম পুরস্কার বিজয়ী হয়েছেন। গত শনিবার দুবাইয়ে এই লটারির ৪৮তম ড্র অনুষ্ঠিত হলেও সোমবার প্রথম পুরস্কার জয়ীর নাম ঘোষণা করেছে মাহজুজ লটা’রি কর্তৃপক্ষ।

 

পাকিস্তানি এই প্রবাসী সংযুক্ত আরব আমিরাতে গাড়ি চালিয়ে মাসিক ৬ হাজার দিরহাম আয় করেন। পরিবারে স্ত্রী, ৪ বছর বয়সী এক কন্যা ও দুই বছরের ছেলে সন্তান রয়েছে তার; যারা পাকিস্তানে বসবাস করেন। বর্তমানে তৃতীয় আরেক সন্তানের প্রত্যাশা করছেন। জুনাইদ বলেন, ‘আমি চোখ ব’ন্ধ করে নম্বরটি তুলেছি। আমি কখনও দামি জিনিস পাওয়ার স্বপ্ন দেখিনি। আমি একেবারে একজন সাধারণ মানুষ এবং আমি এতেই খুশি।’

 

শত কোটি টাকার লটারি জয়ের খবর কীভাবে পেলেন জুনাইদ? তিনি বলেন, ডিউটি শেষে সহক’র্মীর সঙ্গে বসে ছিলেন। ওই সময় তিনি জ্যা’কপট জয়ের খবর পান। ‘ওই সহকর্মী আমাকে বলেন, কেউ একজন লটারিতে ৫০ মিলিয়ন দিরহাম জিতেছেন। আমি তাকে বলেছি, ভালো। আমার নম্ব’রগুলো দেখতে দাও। তখন আমি দেখি যে, আমার টিকেটের প্রথম তিনটি নম্বর মিলে গেছে। তিনটি নম্বর মিলে যাওয়ার পর টিকেটের মূল্য ফেরত পাওয়া গেছে ভে’বে হাসছিলাম।’

 

লটারিতে পাওয়া এত টাকা কি করবেন সেই পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছেন জুনাইদ। বলেছেন, এই মুহূর্তে আমার এক লাখ দিরহাম ঋণ আছে। আমার বড় ভাই বিশাল অং’কের ঋ’ণ করেছেন। আমি প্রথমে সেগুলো পরিশো’ধ করবো। পরবর্তীতে দুবাই এবং পাকিস্তানে আমার পরিবারের জন্য বিশাল বাড়ি কেনার পরিকল্পনা আছে। এছাড়া আমি শিগগিরই আমার স্বপ্নের একটি গাড়ি কিনতে চাই; যা নিসান স্কাইলাইন জিটিআর।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: