শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন

কারামুক্ত হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান

প্রকাশিতঃ বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১, ১:৪৩ অপরাহ্ন

নৌবাহিনী কর্মকর্তাকে মা’রধ’রে’র ঘটনায় করা মা’ম’লায় জা’মিন পেয়ে ঢাকা কেন্দ্রীয় কা’রাগার থেকে মু’ক্তি পেয়েছেন ​সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম। বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তাকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার (কেরানীগঞ্জ) থেকে মু’ক্তি দেওয়া হয়।ঢাকা কেন্দ্রীয় কা’রাগারের (কেরানীগঞ্জ) জেলার মাহাবুবুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ইরফান সেলিমের বি’রু’দ্ধে করা মোট ৫টি মা’ম’লা’র মধ্য চকবাজার থানায় করা একটি মা’দ’ক ও একটি অ’স্ত্র মা’ম’লায় তদ’ন্ত কর্মকর্তা চকবাজার থানার পরিদর্শক (তদ’ন্ত) তাকে অ’ব্যাহ’তি দিয়ে সুপারিশ করে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন।

 

বাসায় মা’দ’ক রাখার দায়ে একটি মা’মলা’য় এক বছর ও অ’বৈধ ওয়া’কিটকি রাখার দায়ে ছয় মাসের কা’রাদ’ণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। তবে এ দুই মা’ম’লায় তিনি নির্বাহী আদালতে আ’পিল করে জা’মিনে আছেন। বাকি নৌবাহিনীর অফিসারকে মা’রধ’র ও ‘হ”ত্যা’র হু’ম’কির অ’ভিযো’গের মাম’লায় সর্বোচ্চ আ’দালতে তার জা’মি’নের আদেশ বহাল রাখায় এখন তিনি মু’ক্তি পেয়েছেন।

 

উল্লেখ্য, গত বছর ২৫ অক্টোবর সন্ধ্যার পর ধানমণ্ডির কলাবাগান ক্রসিংয়ে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফের মোটরসাইকেলকে ধা’ক্কা দিয়েছিল ‘সংসদ সদস্য’ স্টিকার লাগানো হাজী সেলিমের গাড়ি। ঘটনার সময় সংসদ সদস্য হাজী সেলিম গাড়িতে ছিলেন না। তার ছেলে ইরফান ও নিরাপ’ত্তার’ক্ষী ছিলেন। এরপর নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তা মোটরসাইকেল থামান এবং নিজের পরিচয় দেন। এ সময় হাজী সেলিমের গাড়ি থেকে দুজন ব্যক্তি নেমে লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফকে মা’রধ’র করে।

 

একপর্যায়ে ওই কর্মকর্তা আ’ত্মর”ক্ষার চেষ্টা করেন। এ সময় ওয়াসিফের স্ত্রীকেও লা’ঞ্ছি’ত’ করা হয়। ঘটনাস্থলে লোকজন জ’ড়ো হয়ে গেলে সংসদ সদস্যের গাড়ি ফেলে মা”রধর’কা’রীরা পা’লিয়ে যান। পরে পুলিশ এসে গাড়ি ও মোটরসাইকেলটি জ’ব্দ করে থা’নায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ঘটনায় হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমসহ চারজনের বি’রু’দ্ধে গত বছর ২৬ অক্টোবর ধানমণ্ডি থানায় ‘মা”রধ’র ও’ ‘হ”ত্যা’চেষ্টা’ মাম’লা করেন নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: