মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১০:০১ পূর্বাহ্ন

রিক্সাচালককে কোটি টাকার সম্পত্তি দান করে দিলেন বৃদ্ধা

প্রকাশিতঃ সোমবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২১, ৭:২৮ পূর্বাহ্ন

কথায় আছে, বিপদে বন্ধু চেনা যায়। ভা’রতের ওড়িষ্যা রাজ্যের কট’কের বাসিন্দা মিনতি পট্টনায়েকও হয়তো বিপদেই বুঝতে পেরেছিলেন, কে আপন। শুধু বুঝতেই পারেননি মিনতি, প্রকৃত আপন মানুষের যোগ্য ম’র্যাদাও দিয়েছেন তিনি। উত্তরাধিকারসূত্রে পাওয়া নিজের ১ কোটি টাকার সম্পত্তির পুরোটাই দান করলেন এক রিক্সাচালককে। ওই রিক্সাচালকই যে বিপদে মিনতির পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।

 

৬৩ বছর বয়সী মিনতির স্বামী ও মে’য়েকে নিয়েই ছিল সুখের সংসার। আর তাদের পরিবারের টুকটাক কাজ করে দিতেন বুদ্ধ শ্যামল নামে ওই রিক্সাচালক। কিন্তু ২০২০ সালে মৃ’ত্যু হয় মিনতিদেবীর স্বামীর। আর পরের বছর মৃ’ত্যু হয় তার মে’য়ের। এতে একবারেই একা হয়ে যান বৃদ্ধা মিনতি। আত্মীয়স্বজন প্রচুর থাকলেও তার পাশে এসে দাঁড়াননি কেউই। কিন্তু রিক্সাচালক বুদ্ধ ও তার পরিবার বরাবরই পাশে ছিলেন মিনতিদেবীর।

 

সেই কারণেই নিজের বাড়ি, গয়নাসহ মোট এক কোটি টাকার সম্পত্তি বুদ্ধর পরিবারকেই দান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মিনতিদেবী। তার কথায়, “স্বামী-সন্তানের মৃ’ত্যুর পর সম্পত্তির আর কোনও মূল্য নেই। আর দুঃসময়ে বুদ্ধ আর তার পরিবার ছাড়া কেউ আমা’র পাশে দাঁড়ায়নি। ওরা আমা’র জন্য প্রা’ণপাত করে চলেছে, সেই কারণেই আমি আমা’র সমস্ত সম্পত্তি বুদ্ধকে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যাতে আমা’র মৃ’ত্যুর পর কেউ ওদের সমস্যায় না ফেলতে পারে।”

 

এমন উপহার কোনওদিন স্বপ্নেও কল্পনা করেননি দরিদ্র পরিবারের বুদ্ধ। তিনি বলেন, “২৫ বছর ধরে পট্টনায়েক পরিবারের সঙ্গে রয়েছি। এই পরিবারের সদস্য ছাড়া আর কেউ আমা’র রিক্সায় চড়েননি। তবে কোনওদিনও এমন কিছু আশা করিনি।” সম্পত্তি পাওয়ার বিষয়টি জানার পর আমৃ’ত্যু মিনতিদেবীর পাশে থাকবেন বলেও জানিয়েছেন এই রিক্সাচালক। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: