বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
আচার বলে বিমানবন্দরে ব্যাগে ঢুকিয়ে দিলো প্যাকেট, সৌদি গিয়ে জেলে প্রবাসী প্রেম নিয়ে গুঞ্জন, নায়িকা বললেন ‘সৃজিত আমার বাবার মতো’ রাস্তায় ঘুরে চুড়ি-ফিতা বিক্রি করছেন নায়িকা মৌসুমী হাতিরঝিলে নতুন সংসার শুরু করলেন অপু বিশ্বাস, চাইলেন দোয়া মালয়েশিয়া প্রবাসীদের পোস্ট অফিস থেকে যেভাবে পাসপোর্ট নিতে হবে মালয়েশিয়ায় রিক্যালিব্রেশনে আবেদনকারীরা কোম্পানির অফিসেই করতে পারবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট মায়ের সামনে আগুনে পুড়ে মরলো শেকলবন্দি কলেজছাত্র! বিমানবন্দরে ১ সপ্তাহের মাঝে নমুনা পরীক্ষা শুরু, মূল্যও কমবে কুয়েত মোবারক আল-কাবির থেকে ৮০ জন গ্রেফতার! দুর্দান্ত জয়ের ম্যাচে ১২ লাখ রুপি জরিমানা দিল মোস্তাফিজদের অধিনায়ক

মৃত ভেবে দাহ করতে শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল দেবকে

প্রকাশিতঃ রবিবার, ২২ আগস্ট, ২০২১, ৭:৪৮ পূর্বাহ্ন

ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা ও সাংসদ দীপক অধিকারী ওরফে দেব। সিনেমায় যেমন জনপ্রিয় এই নায়ক বা’স্তব জীবনেও একই রকম। এবার নিজের সম্প’র্কে গা শি’উরে ওঠার মতো চা’ঞ্চল্য’কর একটি তথ্য জানিয়েছেন তিনি। দেব জানান, শৈশবে তাকে মৃ’ত ভেবে শ্ম’শানে ফে’লে রেখেছিল গ্রামবাসী। সম্প্র’তি শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের সঞ্চালনায় এক অনুষ্ঠানে এমন তথ্য জানান তিনি। ওই শো’তে দে’বের সঙ্গে ছিলেন প্রেমিকা রুক্মি’ণী মৈত্রও। পুরো ঘটনা জেনে শি’উরে ওঠেন তিনি।

 

পশ্চিমবঙ্গের এই সাংসদ জানায়, গাজ’নের মেলা দেখতে মুম্বাই থেকে মামার বাড়ি যান তিনি। তখন তিনি খুবই ছোট। সবার সঙ্গে হইহই করতে করতে গ্রামের মেলায় গিয়েছিলেন। সেখানেই সম্ভবত কেউ কিছু খাইয়ে দিয়েছিল তাকে। সঙ্গে সঙ্গে অ’জ্ঞা’ন হয়ে যান। যার জে’রে কিছুক্ষণ নয়, টানা এক দিন জ্ঞা’ন ফেরেনি তার! এদিকে গ্রামবাসীরা ভেবেছেন, তিনি মৃ’ত। নির্দিষ্ট সময়ের পরে তাকে দা’হ করতে নিয়ে চলে আসেন শ্ম’শানে।

 

দেব আরও জানান, অনেক সময় ধরে যখন আমাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। তখন আমার নানা আমাকে হ’ন্যে হয়ে খুঁ’জতে বের হন। আর কাঁদছেন, কী জবাব দেবেন মেয়ে-জামাইকে। এদিকে শ্মশা’নে ফে’লে রেখে যাওয়ার একদিন পরে জ্ঞা’ন ফেরে দেবের। সারা রাত খোঁজাখুঁজির পর তাকে খুঁজে পান নানা-মামারা। তার নানা তত’ক্ষণে প্রতি’জ্ঞা করে ফেলেছেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেবকে বাড়ি পাঠিয়ে দেবেন। কারণ, তিনি তার মেয়ের একমাত্র সন্তান।

 

এই টালিউড সুপারস্টার বলেন, নানা তার জন্য সেই সময় মানত করেছিলেন, দেবকে খুঁজে পেলে বড় হওয়ার পর তিনি তাকে দিয়ে গাজনের সন্ন্যাস পালন করাবেন। নানার মানত রাখতে মাধ্যমিক পরী’ক্ষা দেওয়ার পরে আবার গ্রামে ফিরেছিলেন দেব। এক সপ্তাহের জন্য তিনি গাজনের সন্ন্যা’সী হয়েছিলেন। অন্যান্য সন্ন্যা’সীদের মতো তখন তিনিও ম’ন্দিরে থাকতেন।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: