বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
শিরোনামঃ
আচার বলে বিমানবন্দরে ব্যাগে ঢুকিয়ে দিলো প্যাকেট, সৌদি গিয়ে জেলে প্রবাসী প্রেম নিয়ে গুঞ্জন, নায়িকা বললেন ‘সৃজিত আমার বাবার মতো’ রাস্তায় ঘুরে চুড়ি-ফিতা বিক্রি করছেন নায়িকা মৌসুমী হাতিরঝিলে নতুন সংসার শুরু করলেন অপু বিশ্বাস, চাইলেন দোয়া মালয়েশিয়া প্রবাসীদের পোস্ট অফিস থেকে যেভাবে পাসপোর্ট নিতে হবে মালয়েশিয়ায় রিক্যালিব্রেশনে আবেদনকারীরা কোম্পানির অফিসেই করতে পারবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট মায়ের সামনে আগুনে পুড়ে মরলো শেকলবন্দি কলেজছাত্র! বিমানবন্দরে ১ সপ্তাহের মাঝে নমুনা পরীক্ষা শুরু, মূল্যও কমবে কুয়েত মোবারক আল-কাবির থেকে ৮০ জন গ্রেফতার! দুর্দান্ত জয়ের ম্যাচে ১২ লাখ রুপি জরিমানা দিল মোস্তাফিজদের অধিনায়ক

মালয়েশিয়ায় ফিরতে সাড়ে ৩ লাখেরও বেশি এমটিপি আবেদন

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:১৬ পূর্বাহ্ন

বৈশ্বিক ক’রো’না ম’হামা’রি তে মালয়েশিয়ার অর্থনীতিসহ দেশটির স্বাভাবিক কর্মযজ্ঞ ও জীবনযাপন ব্যাহত হচ্ছে। ‘ক’রো’না প্রতিরো’ধে দীর্ঘসময় ধরে কঠোর বিধি নি’ষেধের কারণে সাধারণ জনগণসহ অভিবাসীরা নানামুখী স’ঙ্কটের মুখে ক্ষ’তিগ্রস্থ হয়েছেন। হাজার হাজার প্রবাসী কর্মী ক’রে’নাকালে মালয়েশিয়া থেকে ছুটিতে নিজ দেশে এসে এখন আ’টকা পড়েছেন।

 

বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া স্পেশাল ফ্লাইট ছাড়া নিয়মিত ফ্লাইট বন্ধ রয়েছে দীর্ঘ সময় ধরে। ভিসা পারমিট থাকা সত্তেও দীর্ঘ অপে.ক্ষার পরও নানা জ.টিলতার কারণে ফিরতে পারছে না। এরকম ভো.ক্তভো.গী প্রায় তিন লাখ ৫৬ হাজার ৫১০ জন মালয়েশিয়া ফিরতে ইমিগ্রেশন বিভাগের মাই ট্রাভেল পাসে (এমটিপি) অনলাইন আবেদন করেছেন। এর মধ্যে দুই লাখ আট হাজার ৫০৯ জনের আবেদন পাস হয়েছে এবং এক লাখ ২৭ হাজার ৪৬৫ জনের আবেদন বিভিন্ন কারণে বা.তিল করা হয়েছে।

 

এসব আবেদনকারীর মধ্যে রয়েছে মালয়েশিয়ান নাগরিক ও তাদের পোষ্য এবং বিভিন্ন দেশের অভিবাসী ছাত্র শ্রমিক। দেশটিতে প্রবেশ করতে চাইলে ইমিগ্রেশনের পূর্ব অনুমতি প্রয়োজনের কথা উল্লেখ করে এই এমটিপি অনলাইন আবেদন ২০২০ এর নভেম্বর চালু করা হয়েছিল, যা এখনো চালু রয়েছে। গতকাল বিকেলে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা “বা’রনামা” কে দেয়া এক বিবৃ’তিতে এসব কথা বলেন অভিবাসন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল দাজাইমি দাউদ।

 

এর আগে মালয়েশিয়ার একটি স্থা’নীয় পত্রিকায় এক প্রতিবেদনে স’মালো’চনা করে বলা হয়, মাই ট্রাভেল পাসের (এমটিপি) প্রসেসিং অনেক বি’লম্ব হচ্ছে যার কারণে আ’টকা পড়া মানুষজন দেশটিতে ফিরতে পারছেন না এবং দেশটি থেকে বাহিরের দেশে যেতে পারছেন না। তাছাড়াও এমটিভির প্রয়োজনীয়তা ও সহজ শর্তাবলী জনসম.ক্ষে প্রকাশ করা হয়নি। অভি.যোগ অ.স্বীকার করে খায়রুল দাজাইমি দাউদ বলেন, গত ২০২০ এর নভেম্বর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় তিন লাখ ৫৬ হাজার ৫১০টি আবেদন জ.মা পড়েছে। এগুলো প্রসেসিং করতে তিনটি টিম নিয়মিত কাজ করছে।

 

দিন দিন এই আবেদন বে.ড়েই চলেছে তার কারণ বর্তমানে দেশে ল.কডা.উন শি.থিল করা হয়েছে। আগে বাছাই প্রক্রিয়াটির সময়সীমা যেখানে সাত দিন ছিল এখন তা বাড়িয়ে ১৪ দিন করা হয়েছে। এমটিপি আবেদন গ্রহন বা.তিল দেশের অভ্যান্তরীন পরিস্থিতি ও সরকারের বিভিন্ন বিধিনিষেধের উপর নির্ভর করতে হয়। তাই জনগণকে এম.টিপির শর্তগুলো পূরোপূরি বুঝতে হবে পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন বিধি.নিষেধ ও নিয়ম কানুন সম্পর্কে আরো সত.র্ক থাকতে হবে। এমটিপি আবেদন পক্রিয়া সহজ করতে এর আপডে.ট অব্যাহত আছে বলে তিনি জানিয়েছেন।


More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
error:
error: